Categories
ডোমেইন-হোষ্টিং

ডোমেন নাম খুঁজে না পেলে কি করবেন (domain name)

ওয়েবসাইটের জন্য নাম খুঁজে পাইনা। নাম পেলে (ডট কম) ডোমেইন পাইনা। আমরা প্রায় সবাই কমবেশি এই সমস্যার সম্মুখীন হই।

সমস্যায় পড়ে অনেকেই নামের সাথে বিডি লাগিয়ে দেই। আবার কেউ ডট এক্সওয়াইজেড/ ডট শপ ইত্যাদি ডোমেইন জুড়ে দেই। নতুবা নাম ছুড়ে ফেলে হতাশ হয়ে যাই এবং নতুন নাম খুঁজতে খুঁজতে ব্যবসায় করার বয়স পার করে ফেলি।

সমধানের আগে কয়েকটা উদাহারণ দেই যাদের কোম্পানির নামের এর ‘ডট কম’ ডোমেইন নিজেদের হাতে নেই। যেমন- ই-ভ্যালি, শপআপ, ই-কুরিয়ার, পেপারফ্লাই, নগদ, স্টারটেক, রবি, টেলিটক, রেপ্টো এদের সবার ডট কম ডোমেইনই আগে থেকে বুকড। অর্থাৎ অন্যরা ব্যবহার করছে। তাই বলে কি তাদের ব্যবসায় বন্ধ? ‘ডট কম ডট বিডি’ দিয়ে তো দিব্বি কোটি কোটি টাকার ব্যবসায় করছে ‘ডট কম’ ডোমেইন ছাড়াই।

আগে থেকে ব্যবহার করছে এমন বা প্রিমিয়াম করে রাখা ডোমেইনও পাওয়া যায়। সেক্ষেত্রে বড় অঙ্কের টাকার অফার করতে হয়। প্রায় সব ব্যক্তি/কোম্পানিই তাদের নামের বুকড ‘ডট কম’ ডোমেইন কেনার জন্য চেষ্টা করে কিন্তু তাতেও কাজ না হলে পরে অন্য দিকে ঝুঁকতে হয়। সেক্ষেত্রে তাদের সবার পছন্দই ‘ডট কম ডট বিডি’।

কেননা, ‘ডট কম ডট বিডি’ তে কান্ট্রি ডোমেইন দ্বারা ব্যবসায়ের সেবার পরিধি প্রকাশ পায়। গুগল সার্চ রেজাল্টেও ভালো সুবিধা পাওয়া যায়। প্রিমিয়াম একটা ভাব থাকে মনে হয় যেন সরকার কতৃক অনুমোদিত, বিশ্বস্ত, হাহা…। আরেকটা সুবিধা হলো কোম্পানির মূল নামটা কিন্তু ঠিকই থাকে। কোন উপসর্গ অনুসর্গ যুক্ত করার প্রয়োজন পড়ে না।

সেজন্য ডট কমের পরেই ডট কম ডট বিডি, (প্রয়োজন মাফিক) ডট নেট, ডট এক্সওয়াইজেড এসব কমনগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়া প্রয়োজন। অনেকে আছে যারা জানেইনা ডট কম/নেট/ওআরজি ছাড়া ডোমেইন হয়। তাদের কাছে ডট শপ, ডট কো নিতান্তই অন্যরকম লাগবে।

তবে হ্যাঁ, যদি একই দেশে একই নামের ডট কম কেউ ব্যবহার করে তবে সেই নামের ‘ডট কম ডট বিডি’ বা অন্য কোন টপ লেভেল ডোনেইন ব্যবহার না করাই শ্রেয়। উপরের উদাহারণ গুলো হুইজ ইনফো চেক করলে দেখবেন ‘ডট কম’ওয়ালারে সব বাইরের দেশের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *